গানের জগতে প্রতিষ্ঠা পেতে চায় স্বর্ণপদক প্রাপ্ত বাঁধন

0
144

প্রথম যে দিন দেখিলাম তোমায় মনেরেই অঙ্গিনায়, সেদিন থেকে দু’চোখের ঘুম কেড়ে নিলে আমার.. ও যে প্রিয়া আমার বুকে, বাঁধনের গাওয়া এ গান দু’টির কথা ও সুর নিজেই করেছেন। গানটি ইতোমধ্যে ইউটিউব চ্যানেলে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। উলিপুরের বাঁধন গানের পাগল। সেই ছোট বেলা থেকেই গানের সাথে জড়িয়ে পড়ে সে। অর্থাভাবে তেমন প্রতিষ্ঠা না পেলেও গানের ভূবনে উলিপুরে একজন হয়ে উঠেছে। দেশাত্মবোধক আর আধুনিক গানের পাশাপাশি অক্টোপ্যাড, তবলা, ঢোলক ও ড্রামসেট বাজিয়ে থাকে সে। উপজেলা পর্যায়ের যে কোন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন থাকলেও প্রচার বিমুখ বাঁধন স্বপ্ন দেখে অনেক দুর এগিয়ে যাওয়ার। কিন্তু সে আশা শুধু স্বপ্ন হয়ে আছে। পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে বাবার অভাবের সংসারের টাকা খরচ করে ২টি মিউজিক ভিডিও তৈরি করেছে। সাড়াও ফেলেছে ভিডিও ২টি। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়ার সময় উলিপুর মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সৈয়দা উম্মে হাবীবার হাত ধরে গানের হাতেখড়ি। তারপর প্রতিভাবান গণ-সংগীত শিল্পী রুপু মজুমদার, পল্লীগীতি শিল্পী নির্মল কুমার দে, ইউনূস আলীর কাছে গান শেখে বাঁধন। এসএসসি পাশ করে উলিপুর মহারাণী স্বর্ণময়ী স্কুল এন্ড কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকে ভর্তি হলেও লেখাপড়া করতে পারেনি। প্রাথমিক, মাধ্যমিক আর কলেজ পড়ার সময় উপজেলা ভিত্তিক বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে অর্জন করেছে শতাধিক পুরস্কার। ২০১৬ সালে বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা আয়োজিত সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে ‘ঘ’ বিভাগে দেশাত্মবোধক গান গেয়ে প্রথম স্থান অধিকার করে স্বর্ণপদক অর্জন করেন। বাবা সুরেশ চন্দ্র সরকার একজন ইলেকট্রিক মিস্ত্রি। বাঁধন সরকার সবুজ এর বাড়ি জেলার উলিপুর উপজেলার পূর্ববাজার এলাকায়। সে ভবিষ্যতে গান গেয়ে প্রতিষ্ঠা পেতে চায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here