ফুলবাড়ীতে স্কুল মাঠ দখল করে গরু ছাগলের হাট

0
614

রবিউল ইসলাম বেলাল, ফুলবাড়ী:
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার রাবাইতারী এসবি বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে বসছে গরু ছাগলের হাট। এমনি ভাবে চলে আসছে বছরের পর বছর খড়িবাড়ী হাটের এসব কর্মকান্ড। ক্রেতা বিক্রেতার উপস্থিতি বেশি হওয়ায় অন্যান্য হাটের চেয়ে এক বছরে রাজস্ব আদায় ২৪ লক্ষ ছত্রিশ হাজার টাকা। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির ছোট ভাই হাট ইজারাদার আহাম্মদুর রহমান আওয়ামী লীগের প্রভাব শালী নেতা হওয়ায় স্কুল শিক্ষার্থী ও গভনিং বডির সদস্যরা ভয়ে তাদেরকে কিছু বলতে পারে না। এখানে গরু, ছাগল, মহিষ, ভেড়া, বাইসাইকেল, রিক্্রা, ভান, ট্রলি, সুপারি, কাঠের তৈরি খাট, চেীকি সহ অন্যান্য দ্রব্যসামগ্রী। এমনকি হাটবাজারের টোল আদায়ের বিলবোর্ডও লাগানো হয়নি, ইচ্ছামত টোল নেন তারা।
সরেজমিনে গিয়ে দেখাগেছে, সপ্তাহে শুক্রবার ও সোমবার করে বসে গরু ছাগলের হাট। হাট ইজারা কমিটির চুক্তিনামায় ২৪ লক্ষ ছত্রিশ হাজার টাকায় রাজস্বে এক বছরের জন্য খড়িবাড়ী হাটটি ইজারা দেওয়া হয়েছে। চুক্তির শর্ত অনুযায়ী ইজারাদার হাট সীমানার বাইরে কোন প্রকার দ্রব্যসামগ্রীর হাট বসাতে বা টোল আদায় করতে পারবে না। এ ছাড়াও ইজারাদার নিজ খরচে পরিস্কার রাখবে। কিন্তু বাস্তবে তা দেখা গেছে ভিন্ন। ইজারাদার যে সকল শর্ত ভঙ্গ করে রীতিমতো হাটের বাইরে স্কুল মাঠে হাট বসিয়েছেন। এমন একটি বড়বিদ্যাপিঠ মাঠে বসে গরু ছাগলের হাট, মাঠটি প্রায় সময় থাকে নোংরা অপরিচ্ছন্ন ওই শিক্ষা প্রতিষ্টানে কর্মকর্তা কর্মচারি ও ছাত্র ছাত্রীরাও ইজারাদারের ভয়ে কথা বলতে চান না।
ঘড়িবাড়ী হাটের ইজারা গ্রহিতা আহাম্মদুর রহমান শেখের সাথে মোবাইল ফোনে কথা হলে তিনি জানান, অনেক বছর থেকে ওই স্কুল মাঠে গরু ছাগলের হাট বসে তাই প্রতি শুক্রবার ও সোমবার হাট বসানো হয়। হাট শেষে আমরাই মাঠটি পরিস্কার করে রাখি যাতে প্রতিষ্টানের কোন প্রকার সমস্যা না হয়।
রাবাইতারী এসবি বহুমূখি উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আজাউর রহমান বলেন, হাট ইজারার জায়গা কম থাকায় স্কুল মাঠে গরু ছাগলের হাট বসে। আমি প্রায় এক বছর হয়েছি প্রধান শিক্ষককের দায়িত্ব নেবার এই মাঠে অনেক বছর থেকে হাট বসে। তবে স্কুল মাঠে গরু ছাগলের হাট বসানোর কোন নিয়ম নেই।
এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. মাছুমা আরেফিন জানান, যার নামে হাট ইজারা দেওয়া হয়েছে চুক্তিনামায় উল্লেখ করা আছে সরকারী ইজারা মূল্যের জায়গা ছাড়া স্কুল মাঠে গরু ছাগলের হাট বসানো যাবেনা। তবে বিষয়টি খুব দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
কুড়িগ্রাম জেলা প্রসাষক সুলতানা পারভিন জানান, বিষয়টি এখন শুনলাম আমি দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বলতেছি। স্কুল মাঠে আর যেন গরু ছাগলের হাট না বসে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here