উদ্বোধন হলো যাত্রী ছাউনী দুঃখ ঘুছলো ৩হাজার মানুষের

0
163

চিলমারী প্রতিনিধি:
একমাত্র ভরসা নৌকা এছাড়া নেই কোন রাস্তা আছে শুধু ঐ একটাই ভরসা তা হলো নৌকা। কি বন্যা কি খড়া বা শীত নেই কোন উপায় নৌ-পথ ছাড়া। কিন্তু এর চেয়েও বড় দূর্ভোগ ছিল নৌকার অপেক্ষা করা সাথে রোদে পুড়ে বৃষ্টিতে ভিজে বা শীতের হিমেল হাওয়ায় দিনের পর দিন কষ্টে পরিধি বেড়েই চলছিল চরাঞ্চলের মানুষের। অবশেষে কষ্ট আর দুঃখ দুর করলো একটি যাত্রী ছাউনী ঘর উদ্বোধনে। হাসি ফুটলো প্রায় ৩হাজার মানুষের মুখে।
জানা গেছে, কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী উপজেলার নয়ারহাট ও চিলমারী ইউনিয়নের বজড়া দিয়ার খাতা, নামাচর, চড়–য়া পাড়া, তেলিপাড়াসহ বেশ কয়েকটি গ্রামের প্রায় ৩ হাজার মানুষ উপজেলা সদরের সাথে যোগাযোগের একমাত্র ভরসা নৌকা আর একটি ঘাট বজড়া দিয়ার খাতা। একটি নৌকা হওয়ায় সময় মতো নৌকার দেখা না মিললে শতশত মানুষকে ঘন্টার পর ঘন্টা নৌকার অপেক্ষায় প্রহর গুনতে হতো প্রচন্ড রোদে পুড়ে বা বৃষ্টিতে ভিজে এবং শীতের সময় হিমেল হাওয়ায় কষ্ট করে। দিনের পর দিন হাজার হাজার নারী পুরুষের কষ্ট বেড়েই চলছিল কষ্ট থেকে বাদ যায়না শিশু শিক্ষার্থীরাও। তাদের এই কষ্টের কথা ভেবে অবশেষে নয়ারহাট ইউপি চেয়ারম্যান আবু হানিফা, আওয়ামী লীগ নেতা ইউসুফ আলী, শামসুল হক, মেম্বার আঃ রশিদ, ঘাট মাষ্টার লিপু, যুবলীগ নেতা মাহফুজার রহমানের উদ্যোগে তৈরি করা হলো একটি যাত্রী ছাউনী। যাত্রী ছাউনী টি শুক্রবার বিকালে উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীর বিক্রম। এসময় নয়ারহাট ইউপি চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুছ সরকার, জেলা পরিষদ সদস্য রেজাউল করিম লিচু, চিলমারী ইউপি চেয়ারম্যান গওছল হক, রানীগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল ইসলাম প্রমুখ। এবং উদ্বোধনের সাথে দুঃখ ঘুছলো হাজারো মানুষের। হাসি ফুটলো চরবাসীদের। আঃ রউফ, ভুট্টু, আমিনুল, মর্জিনাসহ অনেকে বলেন নৌকার অপেক্ষা আর রোদ, বৃষ্টি, শীতে কত কষ্ট হতো এটা বুঝোনো খুবই মুশকিল এখন এই যাত্রী ছাউনী সব দুঃখ আর কষ্ট দুর হবে ইনশাআল্লাহ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here