কুড়িগ্রামে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে আসামী গণির যাবজ্জীবন কারাদন্ড

0
97

স্টাফ রিপোর্টার:
কুড়িগ্রামের চিলমারীতে জমিজমা নিয়ে বিরোধের জেরে আব্দুর রহমান নামে একজনকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে আব্দুল গণি (৪৫) নামে একজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ মুন্সী রফিউল আলম। রায়ে অপর ৬ আসামীকে খালাস প্রদান করে আদালত।
পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট এস.এম আব্রাহাম লিংকন জানান, চিলমারী উপজেলার থানাহাট ইউনিয়নের মাচাবান্ধা গ্রামের আব্দুর রহমানের সাথে প্রতিবেশী আমজাদ হোসেন গংদের সাথে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এনিয়ে গত ১৩ এপ্রিল ২০০২ সালে সকাল ৮টার দিকে আব্দুর রহমান তার ইরি জমিতে শ্যালোয় পানি দিতে গেলে আব্দুল হাকিমের বাড়ীর সামনে আসামীরা সংঘবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা চালায়। এতে আব্দুর রহমান গুরুতর আহত হলে তাকে রংপুরে চিকিৎসা দেয়া হয়। ওই দিনই তার পূত্র হাবিল উদ্দিন বাদী হয়ে ৭জনকে আসামী করে চিলমারী থানায় পিতাকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করে। মেডিকেল সার্টিফিকেট, চার্জশীট এবং পরবর্তীতে সাক্ষি-প্রমাণের ভিত্তিতে দীর্ঘ শুনানীর পর রোববার দুপুরে কুড়িগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মুন্সী রফিউল আলম আসামী আব্দুল গণিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন। এছাড়াও এ মামলার অপর আসামী আব্দুল হামিদ (৪০), মনিরুল ইসলাম (২৬), আমজাদ গোসেন (৫৫), মোছা: মবেদা খাতুন (২৮), রানী বেগম (২৫) ও শামসুন্নাহার (৪৫) কে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।
বিজ্ঞ পিপি অ্যাডভোকেট এস.এম আব্রাহাম লিংকন আরও জানান, ঘটনার পর থেকে এই আসামী জেলহাজতে কারাবন্দি রয়েছে। রোববার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে রায় ঘোষনার সময় এই আসামী উপস্থিত ছিল। রায় ঘোষণার পর আব্দুল গণি ছিল নির্বিকার।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট এস.এম আব্রাহাম লিংকন এবং আসামী পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট এনামুল হক চৌধুরী চাঁদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here