বৃষ্টির ভয়ে বিদ্যুৎ উধাও নেটওয়ার্ক অচল

0
106

চিলমারী প্রতিনিধি:
বিদ্যুৎ ভয়ের তালে যায় হারিয়ে সাথে অচল করে দেয় নেটওয়ার্ক হয়ে পড়ছে যোগাযোগ বিছিন্ন। বৃষ্টি বা হালকা বাতাস অথবা যদি দেয় গর্জন সাথে সাথে ভয়ে উধাও হয় বিদ্যুৎ আর সেই সাথে অচল নেটওয়ার্ক হয়ে যায় যোগাযোগ বিছিন্ন। দিনের পর দিন অসহায় হয়ে পড়ছে মানুষ। নেই কোনো প্রতিকার, আছে শুধু অজুহাত। এভাবেই চলছে চিলমারী মানুষের কষ্টের অজানা পথ। আর ফায়দা নিচ্ছে পল্লী বিদ্যুৎ। হঠাৎ গর্জন আকাশে মেঘ কিংবা সামান্য বৃষ্টি বাতাসেই চিলমারীর বিদ্যুৎ উধাও হয়ে যাচ্ছে। উধাও হওয়া বিদ্যুতের দেখা পাওয়া হয়ে পড়ে বড় মুশকিল। ঘন্টার পর ঘন্টা এরপর যদিও মেলে দেখা তবে থাকতে পরবে না বৃষ্টি বা বাতাস। এরপরও আশা যাওয়ার মধ্যেই চলে দিন রাত। বিদ্যুৎ একবার উধাও হলে কখন আসবে তা বলাও মুশকিল তা দিনে হক আর রাতেই। ফলে সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, ব্যাংক, বীমার কর্তৃপক্ষরা কাজ করতে পড়ছে হিমশিমে। দিনের বেলায়ও মমবাতি জ্বালিয়ে বা জেনারেটর চালিয়ে কাজ করছে তারা। ইলেক্সটনিক্স ব্যবসায়ীদের পড়েছে মাতায় হাত বিদ্যুতের ভেলকিবাজিতে তারা পড়ছে বিপাকে।
জানা গেছে, এই অবস্থা এখন চিলমারীর নিত্য দিনের সঙ্গি। বিদ্যুতের এই ভেল্কিবাজির ফলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বিদ্যুৎহীন থাকছে চিলমারীবাসী। ব্যাহত হচ্ছে সরকারি, বেসরকারি, ব্যাংক, বিমার কাজ, বেহত হচ্ছে স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনা। তীব্র গরমে ঘণ্টায় ঘণ্টায় প্রায় লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ হয়ে পড়ছে জনসাধারন। দিনে প্রায় অর্ধেকের বেশি সময় এবং রাতেও ঘন্টার পর ঘণ্টা লোডশেডিং করা হচ্ছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা লোডশেডিং ও ঘন ঘন বিদ্যুৎ বিভ্রাটের স্বীকার বিদ্যুৎ গ্রাহকদের মধ্যে বাড়ছে চাপা ক্ষোভ। এ ভাবে লোডশেডিং চলতে থাকলে যে কোনো সময় এই ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ ঘটার আশঙ্কা রয়েছে। অপর দিকে, ইলেক্ট্রনিক্স ও ইলেক্সটিক ব্যবসায়ীরা পড়ছে বিপাকে অফিসিয়ালি ও অন্যান্য কাজে দুর্দান্ত থেকে আশা মানুষজন ঠিকমতো ফোটোকপি কম্পিউটার কম্পোজ বিদ্যুতিক নির্ভশীল কাজ কর্ম করতে পরছে না। উপজেলায় ফোটোকপি, কম্পিউটার ব্যবসায়ী সভাপতি এস এম নুরুল আমিন সরকার জানায় বিদ্যুতের লোডশেডিং বেশি হওয়ায় দিন দিন ব্যবসা অচল হচ্ছে আর পল্লী বিদ্যুতের দায়িত্বরতরা নানান অজুহাত দিয়ে ফায়দা ঠিকই লুটছে। সরকারি এক কর্মকর্তা জানান বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ের কারণে আমাদেরও কাজ করতে অনেক অসুবিধা হচ্ছে। চিলমারী পল্লী বিদ্যুৎ অফিস সূত্রে যানা গেছে চিলমারী উপজেলায় চাহিদার তুলনায় বিদ্যুৎ কম পাওয়া যাচ্ছে তাছাড়াও লাইনের বিভিন্ন সমস্যা রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here