ফুলবাড়ীতে বোরো ধান চাষ করে লোকসানে কৃষক

0
88

রবিউল ইসলাম বেলাল,ফুলবাড়ী:
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে বোরা ধান চাষ করে বিপাকে পড়েছেন উপজেলার কৃষকরা। ধানের দাম কম হওয়ায় বড় ধরনের লোকসান হতে পাড়ে বলে ধারনা করছেন কৃষকরা। বিঘা প্রতি লোকসান ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা লোকসান গুনতে হচ্ছে তাদের।
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সুত্রে জানাযায়, উপজেলায় মোট কৃষক ৩৩ হাজার ১৫৬ জন। এদের মধ্যে ভুমিহীন চাষি ৩ হাজার ২৫০ জন, প্রান্তিক চাষি ১০ হাজার ৭২৮ জন, ক্ষুদ্র চাষি ১২ হাজার ৯২৫ জন, মাঝারি চাষি ৫ হাজার ৭৮৩ জন এবং বড় চাষি ৪৭০ জন। এ মৌসুমে উপজেলার ১১ হাজার ৪৫০ হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষ হয়েছে। ধানের উৎপাদনের লক্ষমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে ১১ হাজার ৩০৫ হেক্টর। প্রান্তিক কুষকের জমির পরিমান সামান্য। অভাবের কারনে বাধ্য হয়ে তারা প্রতি বছর বোরো ও আমন মৌসুমে অন্য কৃষকের কাছে জমি এক বছরের জন্য বর্গা নিয়ে চাষাবাদ করেন। উপজেলার কয়েকজন কৃষকের সাথে কথা হলে তারা জানান, অধিক লাভের আশায় আগাম ধানের টাকা দিয়ে জমি বর্গা নেই। প্রতি বিঘায় ১৮-২২ মন ধান হয়েছে। বাজারে প্রতিমন মোটা ধান ৪৫০-৪৮০ টাকা, চিকন ধান ৬৫০-৭২০ টাকা করে মন বিক্রি করছি। যা প্রতি বিঘায় খরচ হয়েছে ৭ থেকে ৮ হাজার টাকা। যার বিঘা প্রতি ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা লোকসান গুনতে হবে। কাশিপুর ইউনিয়নের সেনপাড়া গ্রামের কৃষক শ্রী সন্তোষ কুমার, পানিমাছকুটি গ্রামের কৃষক আয়নাল হক ও বাদল মিয়া বলেন, আমরা ৭ বিঘা জমিতে বোরো ধান আবাদ করেছি সব খরচ হিসাব ধরে প্রায় ২৭ হাজার টাকা লোকসান হতে পারে। যারা জমি বর্গা নিয়ে আবাদ করতেছেন তাদের লোকসান আরো অনেক বেশি। সরকার যদি আলাদা কোম্পানী খুলে বাজারে বেশী দরে ধান ক্রয় করে তাহলে কৃষকেরা ধান চাষাবাদ করতে আগ্রহ থাকবে। নয়তো ভবিষৎ কোন কৃষক ধান চাষ করা ছেড়ে দিবে আমার বিশ্বাস।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা মো. মাহাবুবুর রশীদ জানান, এবারের লক্ষমাত্রার চেয়ে অনেক বেশি পরিমানে ধান উৎপাদন হয়েছে। সরকারী ভাবে ধান-চাল ক্রয় শুরু হয়েছে ধানের দাম বেশি পেতে পারে। আমরা খাদ্য গুদামে কৃষকদের নামের তালিকা জমা দিয়েছি সেখান থেকে তাদের কাছ থেকে ধান ক্রয় করবেন খাদ্য অধিদপ্তরের লোকজন। এবারে ফুলবাড়ী উপজেলার মোট বরাদ্দ ৩,৩৪ মে:টন ধান। এতো কম বরাদ্দে কৃষকদের চাহিদা পুরন করা সম্ভব নয় বলে তিনি জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here