উলিপুরে ভাঙ্গন রোধে পাউবো‘র হাস্যকর উদ্যোগ !

0
56

উলিপুর প্রতিনিধি:
কুড়িগ্রামের উলিপুরে ব্রহ্মপূত্র নদের ৩ কিঃমিটার জুড়ে ভাঙ্গন অব্যাহত থাকলেও মাত্র ৬৫ মিটার রক্ষায় প্রায় ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে ৬ হাজার বালু ভর্তি জিও টেক্সটাইল ব্যাগ ফেলছে পাউবো। স্থানীয়দের অভিযোগ সরকারের অর্থ অপচয় হলেও তা ভাঙ্গন রক্ষায় কোন কাজে আসবে না। গত ২০ সেপ্টেম্বর শুক্রবার পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন কালে পাউবো কর্তৃপক্ষকে ভাঙ্গন রোধে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশ দিলে এ উদ্যোগ নেয়া হয়।
জানা গেছে, উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের পালের ভিটা, নয়াডারা, কামারটারী, দাগারকুটি, হাতিয়া গ্রামে ব্রহ্মপূত্র নদের ভাঙ্গনে গত ৩ মাসের ব্যবধানে ৫ শতাধিক বাড়ি-ঘর ও কয়েক‘শ একর অবাদি জমি নদী গর্ভে চলে যায়। পাউবো ভাঙ্গন রোধে কোন পদক্ষেপ না নিলেও প্রতিমন্ত্রীর নির্দেশে নড়েচড়ে বসেন। সে মোতাবেক গত বৃহস্পতিবার ভাঙ্গন কবলিত প্রায় ৩ কিঃ মিটারের মধ্যে মাত্র ৬৫ মিটার স্থানে ৬ হাজার বালু ভর্তি জিও টেক্সটাইল ব্যাগ ডাম্পিং কাজের উদ্বোধন করেন, কুড়িগ্রাম-৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক এমএ মতিন। পাউবো কর্তৃপক্ষের ভাঙ্গন রোধের এমন হাস্যকর উদ্যোগে ক্ষুব্ধ ব্রহ্মপূত্র পাড়ের মানুষজন। সরেজমিনে গিয়ে কথা হয়, পালে ভিটা গ্রামের ছপিয়াল হকের সাথে। তিনি বলেন, ‘তোমরায় কন, কোতদুর ভাংবের নাগছে, আর ওমরা অলপে এখনাত বস্তা ফেলায়। খালি বস্তাগুলা নদীত ভাসি যাইবে বাহে। কামের কাম কিছুই হবার নয়’। ওই গ্রামের ভবেশ পাল, প্রফুল্ল পাল, মোজাহার আলী, ইদ্রিস আলীসহ অনেকেই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, একাজ ভাঙ্গরোধে কোন কাজে আসবে না। আমাদের সাথে তামাশা করা হচ্ছে।
হাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেন বলেন, ভাঙ্গন কবলিত ৩ কিঃমিটার এলাকা জুড়ে ভাঙ্গন অব্যাহত থাকলেও বালু ভর্তি জিও টেক্সটাইল ব্যাগ ডাম্পিং করা হচ্ছে মাত্র ৬৫ মিটারে। পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মহোদয় ভাঙ্গন রোধের নির্দেশ দিলেও তা কার্যকর করছে না পাউবো।
উলিপুর পাউবো’র উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম বলেন, ৬৫ মিটার প্রায় ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে ৬ হাজার জিও টেক্সটাইল ডাম্পিং করা হচেছ। পরবর্তিতে প্রকল্প পাওয়া গেলে বাকি এলাকায় ভাঙ্গন রোধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here