উলিপুরে মামলা দিয়ে নিরীহ পরিবারকে হয়রানির অভিযোগ

0
35

উলিপুর প্রতিনিধি :
কুড়িগ্রামের উলিপুরে দোকান লুটপাটের সাজানো মামলা দিয়ে নিরীহ পরিবারকে হয়রানি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ভূক্তভোগী ওই সব পরিবারগুলো বর্তমানে চরম উদ্বেগ উৎকন্ঠায় দিন কাটাচ্ছে। ঘটনাটি ঘটেছে, উপজেলার খামার বজরা গ্রামে।
জানা গেছে, উপজেলার বজরা ইউনিয়নের খামার বজরা গ্রামের প্রাক্তন শিক্ষক নুরুজ্জামান গং দের সাথে তার আপন মামাতো ভাই কাশেম আলীর পোষ্য পুত্র শাহাজাহান মিয়া গং দের সাথে জমি জমা নিয়ে দীর্ঘদিনের বিরোধ চলে আসছিল । রাস্তার পাশে নুরুজ্জামান মিয়ার ব্যক্তি মালিকানাধীন ১২ শতক জমির উপর জেলেখা বেগম ও লাল মিয়া প্রায় ২০ বছর ধরে বসবাস করে আসছে। একসময় শাহাজান মিয়া ওই জমি নিজের দাবী করেন। এরই এক পর্যায় গত ৫ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে তার ব্যবসা প্রতিষ্টান লুটপাটের কল্পকাহিনী সাজান তিনি। পরে ১৫ সেপ্টেম্বর রবিবার আমলি আদালতে অসুস্থ্য ব্যক্তি ও অন্য এলাকার স্থায়ী বাসিন্দাসহ ১২জন কে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় অন্য ব্যবসা প্রতিষ্টানের ট্রেড লাইসেন্স নথি হিসেবে দাখিল করেন। অনুসন্ধানে ট্রেড লাইসেন্সটি ঘটনাস্থল থেকে প্রায় ১ কিলোমিটার দুরে চাঁদনি বজরার মোড়ের ব্যবসা প্রতিষ্টানের।
তবে সরেজমিন ও স্থানীয় লোকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ওই স্থানে আদৌ কোন দোকান ঘর ছিল না। এ পরিস্থিতিতে ওই সব নিরীহ পরিবারগুলো চরম আতংকে দিন কাটাচ্ছে।
এ ব্যাপারে প্রাক্তন শিক্ষক নুরুজ্জামান মোল্লা বলেন, আমাদের ব্যক্তিমালিকানা জমি আমি এবং আমার ভাই‘রা নদী ভাঙ্গন কবলিত পরিবার জেলেখা বেগম ও লাল মিয়ার কাছে বিক্রি করে দেই। শাহাজান মিয়ার সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমি-জমা সংক্রান্ত মামলা চলে আসছে।##

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here