রাজারহাটে বিরোল প্রকৃতির আঁচিল নিয়ে ঘুরছে যুবক

0
62

রাজারহাট প্রতিনিধি:
কুড়িগ্রামের রাজারহাটে সারা শরীরের বিরোল প্রকৃতির আঁচিল নিয়ে ঘুরছে এক যুবক। তার ছেলে-মেয়েরাও এ রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ছে। ফলে সহায় সম্বলহীন পুরো পরিবারটি চরম বিপাকে পড়েছে।
ভূক্তভোগী পরিবারটি জানান, উপজেলার চাকিরপশার ইউনিয়নের তালুক আষাঢ়ু গ্রামের মৃত বাহার উদ্দিনের পুত্র এনামুল হক(৪৫)। জন্মের পর সুস্থ্য থাকলেও ২৫বছর বয়সে হঠাৎ করে বাম হাতের তালার বিপরীতে একটি সাদা রংয়ের বিরোল প্রকৃতির আঁচিল দেখা যায়। সেখান থেকে আস্তে আস্তে একটি- দু’টি করে এসব আঁচিল সারা শরীরে উঠতে থাকে। আক্রান্ত এনামুল হক জানায়, এই আঁচিলগুলি চুলকায় ও রক্ত বের হয়। সব সময় চুলকার কারণে অস্বস্তি লাগে। পরিবারের লোকজনও বিরক্ত হয়ে যায়। চেহারা বিকৃত হয়ে যায়। ছেলে মেয়েরা ভয় পায়। চিকিৎসার জন্য হোমিও, এলোপ্যাথিক ও কবিরাজী করেছি। তারপরও ভাল হয়নি। এমনকি ঢাকা পিজি ও সোহরাওয়ার্দ্দী হাসপাতালেসহ ছোট বড় ২০টি চিকিৎসা কেন্দ্রে চিকিৎসা নিয়েছি। এ রোগের চিকিৎসায় জমি-জমা বিক্রি করে প্রায় ১৫/১৬লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে। এনামুল হকের কারণে তার একটি মেয়ের শরীরেও এ রোগ দেখা দিয়েছে। তার পরিবার ওই মেয়েটিকে নিয়ে বিপাকে পড়েছে। অল্প বয়সে রোগ দেখা দেয়ায় তার বিয়ে দেয়া দুঃসাধ্য হয়ে পড়বে। তবে মুখম-লে উঠা আঁচিল ধীরে ধীরে ভাল হয়েছে। এ ব্যাপারে ঢাকা মেডিকেল কলেজের হাসপাতালের চিকিৎসক প্রফেসর সাজ্জাদ খন্দকার জানান, এটি ইলেক্ট্রলাইটা বা থেরাপি রোগ। এ রোগ ভাল হতে অনেক সময় লাগে। ব্যয়ও প্রচুর। শারীরিক সমস্যার কারণে তার সাথে কেউ সঙ্গ বা কাজ দিতে চায় না। বর্তমানে বেকারত্ব নিয়ে জিবন যাপন করছে পুরো পরিবার। তাই তিনি রোগ নিরাময়ের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here