ফুলবাড়ীতে অগ্নিসংযোগের দায়ে আটক-৬

0
244

ফুলবাড়ী প্রতিনিধি:
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরকে কেন্দ্র করে হিন্দু পরিবারের বাড়ীতে হামলা, মন্দিরে অগ্নিসংযোগ ও প্রতিমা ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ফুলবাড়ী থানায় মামলা হলে ৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
উত্তেজিত ঘটনাস্থলে উপজেলা নিবার্হী অফিসার মোছাঃ মাছুমা আরেফিন ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মেনহাজুল আলম পরিদর্শন করেছেন।
ওই এলাকার হারুন মিয়া ও নিবারন চন্দ্র জানান, ফুলবাড়ী ইউনিয়নের কবিরমামুদ গ্রামের মৃত হরেন্দ্র নাথ রায়ের ছেলে হরিকান্ত রায়ের সাথে একই গ্রামের মৃত হানিফ উদ্দিনের ছেলে দুলাল হোসেন গং সাথে ৫২”শতাংশ জমির মালিকানা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল।
এর জের ধরে শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ১৫/২০ জনের পুরুষ একত্রে হয়ে হরিকান্ত রায়ের বসত বাড়ীতে আকষ্মিক ভাবে হামলা চালায়। হামলার ফাঁেক কেবা কাহারা হরিকান্ত রায়ের বাড়ীর উঠানের দুর্গামন্দিরে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে ফুলবাড়ী থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে হামলাকারী সন্দেহে ৬ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
আটককৃতরা হলেন, মোস্তফা মিয়া (৬০) ইসমাইল হোসেন (৪৫), মুকুল মিয়া (৪০) আঃ সোবাহান (৫১) আব্দুর রশিদ (৩৫) ও শামছুল হক (৬৫)। পরে হরিকান্ত রায়ের বড়ভাই সুশীল চন্দ্র রায় বাদী হয়ে ২৪ জনকে আসামী করে ফুলবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। (ফুলবাড়ী থানার মামলা নং-১০)।
হরিকান্ত রায় জানান, আসামীরা আমার বাড়ীতে হামলা চালায় এবং মন্দিরে আগুন দিয়ে মুর্তি ভাংচুর করে আমি এই ঘটনার উপযুক্ত বিচার চাই।
আটককৃত মোস্তফা মিয়া ও মুকুল মিয়া জানান, জমি নিয়ে হিন্দুবাড়ীতে হামলা বা মন্দিরে আগুন দেয়ার বিষয়ে আমরা কিছুই জানিনা। ঘটনাটি সাজানো। তারা নিজেরাই মন্দিরে আগুন লাগিয়ে আমাদেরকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছেন ।
ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ খন্দকার ফুয়াদ রুহানী জানান, এ ঘটনায় হিন্দু পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের হয়েছে। প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের জন্য জোর প্রচেষ্টা চলছে । তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীন জানান, আমি মোবাইল ফোনে সংবাদ পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শনের জন্য ইউএনও কে বলেছি বিষয়টি সাম্প্রদায়িক কি না, তবে জমিজমা সংক্রান্ত হতে পারে। এটি পুলিশ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here