রাস্তা সংস্কার হলেও ব্রিজ সংস্কারের অভাবে চরম দূর্ভোগে রাজারহাটবাসী

0
60

প্রহলাদ মণ্ডল সৈকত, রাজারহাট:
কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলায় পাকা রাস্তা সংস্কার হলেও ভাঙ্গা ব্রিজ সংস্কার না হওয়ায় গত ৩ বছর ধরে চরম দূর্ভোগের স্বীকার হচ্ছে এলাকার ১৫ হাজার মানুষ। উপজেলার কাশেম বাজার থেকে বড়বাড়ী যাওয়ার একমাত্র রাস্তার মাঝ পথে ধরাইর ব্রিজে এ সমস্যার সৃষ্টি হওয়ায় প্রতিনিয়ত পথচারীরা দূর্ঘটনা কবলে পড়েছে।
গত বৃহস্পতিবার সকালে বড়বাড়ী থেকে আসা মোটর সাইকেলে থাকা ৩ আরোহী ধরাইর ভাঙ্গা ব্রীজে দুর্ঘটনায় পড়ে আহত হয়ে লালমনিরহাট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। তাদের মধ্যে একজনের অবস্থায় আশংকাজনক বলে হাসপাতালের চিকিৎসক জানিয়েছে।
এলাকাবাসীরা জানান, উপজেলার ঘড়িয়াল ডাঙ্গা ইউনিয়নের কাশেম বাজার থেকে ভীমশর্মা হয়ে বড়বাড়ী যাওয়ার সড়কের মাঝখানে পশ্চিম দেবত্তর মৌজায় ধরাইর ব্রীজ। গত ৩ বছরে আগে বন্যায় কাশেম বাজার হতে বড়বাড়ী যাওয়ার পথিমধ্যে ধরাইর ব্রীজের মাঝখানে ভেঙ্গে যায়। তখন থেকেই ব্রীজটির উপর দিয়ে যানবাহনসহ মানুষ অতিকষ্টে পারাপাড় হয়। রাতের অন্ধকারে এ ব্রীজের উপর দিয়ে যাতায়াত করা কঠিন হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় ব্রীজ পারাপাড় করতে গিয়ে ছোট বড় ২০টির অধিক দূর্ঘটনার কবরে পড়ে। এ বছর ওই সড়কটির পাকা করণের কাজ সমাপ্ত হলেও ধরাইর ব্রিজ সংষ্কার হয়নি। ব্রিজ না হওয়ায় বড়বাড়ী, সুলতান বাহাদুর, ভীমশর্মা, গোবধা, কিসামত গোবধা, মোস্তফি, মিয়া পাড়া ও লালমনিরহাটের মানুষ এ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করতে গিয়ে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন।
এ বিষয়ে সংযোগ সড়কের ভীমশর্মা গ্রামের মহেন্দ্রনাথ রায় বলেন, ব্রিজটি নির্মাণ হয়েছে ১৯৭৫ সালে। ৩০বছর আগে এটি একবার সংষ্কার করা হয়েছিল।
দীর্ঘদিন যাবত এই ব্রীজ ভেঙ্গে পড়ে থাকায় ভাঙ্গা ব্রিজের পশ্চিমে বাইপাস হয়ে প্রতিনিয়ত মালবাহী, গাড়ী, রিকসা, ভ্যানসহ মোটরসাইকেল পার করতে চরম দূর্ভোগের স্বীকার হচ্ছে কর্মব্যস্ত মানুষ। এমনকি বর্ষাকালীন সময়ে বাইপাস সড়কটিও পানিতেই ডোবে যায়।
এছাড়া রাস্তায় ধারে সতর্কতা মুলক সাইন বোর্ড কিংবা মাইলফলক না থাকায় দূর্ঘটনার জন্য সড়ক বিভাগকে দায়ী করেছেন পথিকরা। এলাকারবাসী দ্রুত ব্রীজটি সংষ্কার করার জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন।
এ ব্যাপারে ২১ ডিসেম্বর শনিবার রাজারহাট উপজেলা প্রকৌশলী আলহাজ্ব শফি মোঃ আবু তাহের বলেন, ব্রিজটি ফ্লাড প্রকল্পে গৃহীত হয়েছে। অর্থ বছরে বাস্তবায়ন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here