কুড়িগ্রামে প্রধান শিক্ষকের পরকীয়া স্ত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা

0
64

স্টাফ রিপোর্টার:
পরকীয়া প্রেমে বাঁধা দিলেই নেমে আসে স্বামীর নির্মম নির্যাতন। আর স্বামীর এই নির্যাতন সইতে না পেরে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন রৌমারী উপজেলার সোনাভরি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহাজাহান আলীর স্ত্রী। সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার বন্দবেড় ইউনিয়নের খঞ্জনমারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। গত তিনদিন ধরে হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন ওই গৃহবধু। কর্তব্যরত চিকিৎসক আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, ৭২ ঘন্টা পার না হওয়া পর্যন্ত কিছুই বলা যাচ্ছে না।
পরিবার ও এলাকাবাসীর কয়েকজন অভিযোগে জানান, সোনাভরি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহাজাহান আলী পাশের বাড়ির এক নারীর সাথে দীর্ঘ দিন থেকে পরকীয়া করে আসছে। এ নিয়ে স্বামী- স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া লাগা এবং শারীরিক নির্যাতন করতো প্রধান শিক্ষক শাহাজাহান আলী। এ নিয়ে একাধীক বার পারিবারিকভাবে সালিশী বৈঠক হয়। ঘটনার দিন (১০ ফ্রেরুয়ারি) সোমবার রাতে শাহাজাহান আলী তার স্ত্রীকে বেদম মারপিট করে। এক পর্যায় নির্যাতন সইতে না পেরে স্বামীর প্রতি অভিমান করে রাত সাড়ে ১১ দিকে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ওই গৃহবধু। পরে স্বজনারা তাকে উদ্ধার করে দ্রুত রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক এক গ্রামবাসী অভিযোগ করে জানান, প্রধান শিক্ষক শাহাজাহান আলীর সাথে এলাকার একাধীক নারীর পরকীয়ার সম্পর্ক রয়েছে। একজন প্রধান শিক্ষকের চরিত্র যদি এই হয়, তাহলে ওই বিদ্যালয়ে আমাদের সন্তানদের কিভাবে পড়াশোনা করাবো। অবিলম্বে ওই নারী লিপ্সু প্রধান শিক্ষককে দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি জানান এলাকাবাসী।
অভিযোগের বিষয়ে জানতে প্রধান শিক্ষক শাহাজাহান আলীর মুঠোফোনে (০১৯১৫১৭৫৬৯৭) একাধীকবার যোগাযোগ চেষ্টা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
রৌমারী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এবিএম নকিবুল হাসান দেশের বাহিরে থাকায় তার কোনো মন্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
এ ব্যাপারে রৌমারী থানার ওসি আবু মো. দিলওয়ার হাসান ইনাম জানান, এখন পর্যন্ত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here